Monday , January 30 2023
Breaking News

বর্তমান সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনই সুষ্ঠু হওয়া সম্ভব নয়: চরমোনাই পীর

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেছেন, বর্তমান সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচনই সুষ্ঠু হওয়া সম্ভব নয়। এটা বারবার প্রমানিত। ইভিএম নিয়েও বিতর্ক সার্বজনীন। কিন্তু তারপরও এই সরকারের অধীনে ইভিএমে নির্বাচন আয়োজনের পায়ঁতারা জনমনে আশঙ্কা তৈরি করেছে। রাজনৈতিক অঙ্গনে উত্তেজনা সৃষ্টি করেছে। পুরো বিষয়টা সরকারের অনিঃশেষ ক্ষমতার লোভের প্রতিক্রিয়া। একটি দলের লোভ দেশকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। তা সহ্য করা যায় না।

শনিবার বিকালে রাজধানী পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক যৌথ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পরিষদ প্রেসিডিয়াম, উপদেষ্টা পরিষদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় আমেলার এই সভা হয়।  

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীমের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমানের সঞ্চালনায় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন-প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী, মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম, মাওলানা আব্দুল আউয়াল, মুহাদ্দিস মাওলানা আব্দুল হক আজাদ, অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, আল্লামা নুরুল হুদা ফয়েজী, অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, খন্দকার গোলাম মাওলা, অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য মুফতি মিজানুর রহমান সাঈদ, মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী, মাওলানা খালিদ সাইফুল্লাহ, আল্লামা ড. বেলাল নুর আজিজী, অধ্যাপক ডা. জহুরুল হক, অ্যাডভোকেট শেখ আতিয়ার রহমান, অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন, সৈয়দ আলী মোস্তফা প্রমুখ। 

চরমোনাই পীর বলেন, আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশ আরো সহিংস হয়ে উঠার সমূহ আশঙ্কা দৃশ্যমান হচ্ছে। আন্দোলন দমনে সরকারের সহিংস হয়ে ওঠার প্রতিক্রিয়ায় বিরোধী শক্তিও প্রতিরোধ গড়ে তোলার দৃশ্য জাতিকে আতঙ্কিত করে তুলছে। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনে করে এই পরিস্থিতির জন্য দায়ী হলো আসন্ন নির্বাচন নিয়ে অনিশ্চয়তা এবং ভোটের অধিকার রক্ষায় আশঙ্কা তৈরি হওয়া। সহিংস রাজনীতি থেকে দেশকে মুক্ত করতে নিরপেক্ষ প্রশাসনের অধীনে অবাধ নির্বাচনের বিকল্প নেই। 

সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেন, রাজনীতিকে শান্ত করতে, দেশকে স্বাভাবিক ও গতিশীল করতে অবিলম্বে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচনের রুপরেখা জাতির সামনে পেশ করে সেই মতে পদক্ষেপ নিতে হবে। 

তিনি হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, মানুষের ভোটাধিকার নিয়ে ছিনিমিনি খেললে পরিণতি কি হয় তার দৃষ্টান্ত ১৯৭১ সালে এই জাতি দেখিয়েছে। অতএব জনতার ধৈর্য্য পরীক্ষা করবেন না।

About Banglar Probaho

Check Also

আ.লীগ ও সহযোগীদের কাছে লোক চেয়েছে যুবলী

সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে আগামীকাল রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বড় জমায়েতের উদ্যোগ নিয়েছে যুবলীগ। রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি যখন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.